Widget by:Baiozid khan
  • Advertisement
  • Advertisement

খুশকির সমস্যা থেকে মুক্তির উপায়

Published:2014-01-08 18:53:11    

লাইফস্টাইল ডেস্ক: শীতকালে ত্বক রুক্ষ হয়ে যাওয়া যেমন স্বাভাবিক তেমনি খুশকির সমস্যাও নতুন নয়। মাথার স্ক্যাল্পে প্রতিনিয়ত নতুন কোষ হয়, আর মৃত কোষগুলি ঝড়ে যায়। আর এর থেকে মুক্তি পেতে প্রতিনিয়ত উপায় খোঁজার চেষ্টা করি আমরা। তেমনি কিছু উপায় শুধুমাত্র আপনাদের জন্য।

১. অল্প গরম করা ওলিভ ওয়েল স্ক্যাল্পে একঘন্টা রেখে দিন। তারপর গরম পানিতে মাথা ধুয়ে ফেলুন। পরে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। খুশকির সমস্যা থাকলে কোনও হেয়ারস্টাইলিং শ্যাম্পু করবেন না।

২. গরম পানিতে ৩-৪ টি নিম পাতা দিয়ে দিন। ভাল করে ফোটান। নিম-পানি দিয়ে ভাল করে গোছল করুন। আসলে ব্যাকটেরিয়া দূর করতে নিমের উপকারিতা অনবদ্য। তাই মাথার খুশকি দূর করতে নিমের ওষুধ খুবই কার্যকরী।

৩. আমলা গুঁড়ো ভাল করে পিষে নিন। তাতে তুলসি পাতার রস দিন। এই মিশ্রণটি বাল করে স্ক্যাল্পে লাগান। এক ঘন্টা রাখুন। তারপর শ্যাম্পু করে নিন।

৪. যাদের ওয়েলি স্কিন, তাঁরা ভিটামিন ই ( অ্যাভাক্যাডো) ও জিঙ্ক ( সি-ফুড, বাদাম, ডাল) খাবার খান।

৫. সবচেয়ে ভাল উপায় হল, রোজ সকালে লেবুর রস খান। তাতে খুসকির সমস্যা অনেকটা দূর হবে। অনেকেআবার লেবুর রস স্ক্যাল্পে লাগান। এটাও করতে পারেন। তবে সরাসরি লেবুর রস দেবেন না। এতে চুল পড়ে যায়। গরম পানিতে লেবুর রস দিয়ে মাথায় দিন। ১৫ মিনিট রাখুন। তারপর ধুয়ে ফেলুন। এতে খুশকি তো দূর হবেই, চুলকানি থেকেও রেহাই পাওয়া যাবে।

৬. অলিভ ওয়েল ও আমন্ড তেল--দুটি একসঙ্গে মেশান। স্ক্যাল্পে ৫ মিনিট লাগিয়ে রাখুন। অল্প অল্প মাসাজ করুন। তারপর পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। অলিভ ওয়েল চুলের কন্ডিশনারের কাজ করে। রাতে শোবার আগে অলিভ ওয়েল লাগাতে পারেন। মাথায় একটি সুতির তোয়ালে লাগিয়ে শুতে যান। সকালে শ্যাম্পু দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এই পদ্ধতিটি সপ্তাহে ২-৩ বার করলে উপকার পাবেন।
 
৭. ভিটামিন-বি, বি৬, বি১২ ও ভিটামিন-ই জাতীয় খাবার খান। এতে মাথায় ওয়েলি ভাব দূর হয়, খুশকির সমস্যাও কমে যাবে। চুলের যত্ন নিতে প্রচুর পরিমানে পানি ও ফল ও শাক-সবজি খান। মিষ্টি জাতীয় খাবার না খাওয়াই ভাল। কাফিন জাতীয় পানীয় ও খাবার খাওয়া কম করুন।

৮. চুলের সমস্ত সমস্যার একমাত্র উপায় হল অ্যালোভেরার জেল। এটি একটি প্রাকৃতিক ভেষজ, যা চুলের স্বাভাবিক ময়েশ্চার ধরে রাখতে সাহায্য করে।

৯. খুশকির সমস্যা থাকলে তেল ব্যাবহার না করাই ভাল। তবে বেবি ওয়েল লাগাতেই পারেন। বেবি ওয়েল লাগিয়ে বেশ কিছুক্ষণ ধরে ম্যাসাজ করুন। তারপর একটি তোয়ালে মাথায় জড়িয়ে রাখুন সারারাত। পরের দিন হার্বাল শ্যাম্পু দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন।

১০. এছাড়া শ্যাম্পু ব্যবহার করার আগে দেখে নিন তাতে টি-ট্রি ওয়েল, গ্রিন টি, কেটোকোলাজেল ও জিঙ্ক রিথোইন আছে কিনা। এগুলি খুশকি থেকে মুক্তি পেতে সাহায্য করে।



বাংলাসংবাদ২৪/কেএন
 

আরও সংবাদ